বিয়ানীবাজার সংবাদ

বিয়ানীবাজারে বায়ুদূষণের দায়ে ৭ লাখ টাকা জ’রিমানা, দুটি পাথর ভাঙার যন্ত্রধ্বং,স

বিয়ানীবাজার টাইমস ডেস্কঃ সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজে’লায় অ’বৈধ পাথর ভাঙার যন্ত্র চালানো ব্যক্তিদের বি’রুদ্ধে অ’ভিযান চালিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর। অ’ভিযানে ৪০টি অ’বৈধ পাথর ভাঙার যন্ত্রের মালিককে ৭ লাখ টাকা জ’রিমানা ও দুটি পাথর ভাঙার যন্ত্রধ্বং,স করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুর ১২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মোহাম্ম’দ এম’রান হোসেনের নেতৃত্বে এই অ’ভিযান চালানো হয়।

অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, উপজে’লার শেওলা স্থলবন্দরসংলগ্ন এলাকায় অ’বৈধভাবে পাথর ভাঙার যন্ত্র চালাচ্ছিলেন কয়েকজন অসাধু ব্যবসায়ী। বায়ুদূষণ রোধে এসব যন্ত্র পরিচালনাকারী ব্যক্তিদের বি’রুদ্ধে আজ অ’ভিযান চালায় পরিবেশ অধিদপ্তর। পরে ভ্রাম্যমাণ আ’দালত পরিচালনা করে ৪০টি অ’বৈধ পাথর ভাঙার যন্ত্রের মালিককে ৭ লাখ টাকা জ’রিমানা ও দুটি পাথর ভাঙার যন্ত্রধ্বং,স করা হয়।

অ’ভিযানে পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক মো. বদরুল হুদা ও মো. মোহাইমিনুল হক, বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক বনানী দাস, গবেষণাগার সহকারী মুহাম্ম’দ শাহাদৎ হোসেন, নমুনা সংগ্রহকারী মো. রুবেল মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, বায়ুদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ২০২২ লঙ্ঘন করে অ’পরিক’ল্পিতভাবে পাথর ভাঙার যন্ত্র চালানোর মাধ্যমে বায়ুদূষণ করায় বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন, ১৯৯৫ (সংশোধিত ২০১০)-এর ১৫(২) ধারায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জ’রিমানা করা হয়। এ ছাড়া অ’ভিযান শেষে বায়ুদূষণের দীর্ঘমেয়াদি কুফল নিয়ে অধিদপ্তরের উদ্যোগে পাথর ভাঙার যন্ত্রের মালিক, শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সচেতন করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মোহাম্ম’দ এম’রান হোসেন বলেন, বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণে পরিবেশ অধিদপ্তরের নিয়মিত অ’ভিযান অব্যাহত থাকবে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!