খেলাধুলা

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মিরাজ

বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ২০২২ সালের বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে জায়গা পেয়েছেন এই অলরাউন্ডার।
ওয়ানডে ক্রিকে’টে ২০২২ সালটা স্বপ্নের মতো কে’টেছে মেহেদী হাসান মিরাজের। ব্যাটে-বলে দারুণ অবদান রেখেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে। এবার পারফরম্যান্সের স্বীকৃতিও পেলেন এই অলরাউন্ডার। প্রথমবারের মতো তার ঠাঁই হলো আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে।

মঙ্গলবার দুপুরে আইসিসি ঘোষণা করে ২০২২ সালের বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশ। বাবর আজমের অধিনায়কত্বে অলরাউন্ডার হিসেবে দলে জায়গা পান মিরাজ।

বর্ষসেরা একাদশে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি মিরাজই। দলে নিউ জিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ভা’রত ও অস্ট্রেলিয়া থেকে আছেন দুজন করে। বাংলাদেশ ছাড়া পা’কিস্তান ও জিম্বাবুয়ে থেকে সুযোগ পেয়েছেন একজন করে ক্রিকেটার।

বছরের শুরুতে আ’ফগা’নিস্তান ও শেষের দিকে ভা’রতের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে অবিশ্বা’স্য পারফরম্যান্স উপহার দেন মিরাজ। বছরজুড়ে বল হাতে ধারাবাহিক ছিলেন ২৫ বছর বয়সী অলরাউন্ডার।

সব মিলিয়ে ব্যাটিংয়ে একটি করে সেঞ্চু’রি ও ফিফটিতে ৬৬ গড়ে ৩৩০ রান করেন মিরাজ। বল হাতে ১৫ ম্যাচে ২৮.২০ গড়ে তার শিকার ২৪ উইকেট। ছয় বছরের ক্যারিয়ারে এক পঞ্জিকাবর্ষে এটিই তার সেরা ব্যাটিং বা বোলিং পারফরম্যান্স।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে চট্টগ্রামে আ’ফগা’নিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে আফিফ হোসেনের সঙ্গে মিলে দুর্দান্ত এক জয় এনে দেন মিরাজ। স্রেফ ৪৫ রানে ৬ উইকেট পড়ার পর সপ্তম উইকে’টে ১৭৪ রানের রেকর্ড জুটি গড়েন দুজন। মিরাজ অ’পরাজিত থাকেন ৮১ রানে, তখনও পর্যন্ত যা তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ।

সেটিকে তিনি টপকে যান ডিসেম্বরে। ভা’রতের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে মু’স্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে দশম উইকে’টে ৫১ রানের জুটি গড়ে দল জেতান মিরাজ। নিজে অ’পরাজিত থাকেন ৩৮ রানে। পরের ম্যাচে করেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চু’রি। আট নম্বরে নেমে তিনি খেলেন ৮ চার ও ৪ ছয়ে ৮৩ বলে ১০০ রানের অ’পরাজিত ইনিংস।

মিরাজদের বর্ষসেরা ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্ব পাওয়া বাবরের ২০২২ সালও কে’টেছে দুর্দান্ত। ব্যাট হাতে ৫ ফিফটি ও ৩ সেঞ্চু’রিতে ৮৪.৮৭ গড়ে করেছেন ৬৭৯ রান। তার অধিনায়কত্বে ৯ ম্যাচের ৮টিই জিতেছে পা’কিস্তান। তাই বাবরকেই দেওয়া হয়েছে বর্ষসেরা দলের অধিনায়কত্ব।

বাবরের সঙ্গে উদ্বোধনী জুটির দায়িত্বে আছেন অস্ট্রেলিয়ার ট্রাভিস হেড। গতবছর ৬৮.৭৫ গড় ও ১১২.৪৫ স্ট্রাইকরেটে ৫৫০ রান করেছেন হেড।

মিডল অর্ডারে আছেন আইসিসির পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ রান করা শ্রেয়ার আইয়ার (৭২৪ রান)। পরের নামগুলো যথাক্রমে শেই হোপ (৭০৯ রান), টম ল্যাথাম (৫৫৮ রান ও ১৬ ডিসমিসাল)।

অলরাউন্ডার হিসেবে মিরাজ ছাড়া আছেন জিম্বাবুয়ের সিকান্দার রাজা। ২০২২ সালে তিন সেঞ্চু’রি ও দুই ফিফটিতে ৬৪৫ রান এবং ৮ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

বোলিং আক্রমণে রাখা হয়েছে তিন পেসার আলজারি জোসেফ (২৭ উইকেট), মোহাম্ম’দ সিরাজ (২৪ উইকেট) ও ট্রেন্ট বোল্ট (১৮ উইকেট) এবং লেগ স্পিনার অ্যাডাম জ্যাম্পাকে (৩০ উইকেট)।

আইসিসির ভোটিং একাডেমির ভোট, ক্রীড়া সাংবাদিকদের ভোট এবং অনলাইনে ক্রিকেট অনুসারীদের ভোটে চূড়ান্ত করা হয়েছে এআ একাদশ।

২০২২ সালের আইসিসি বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশ :

বাবর আজম (অধিনায়ক), ট্রাভিস হেড, শেই হোপ, শ্রেয়াস আইয়ার, টম ল্যাথাম (উইকেট’কিপার), সিকান্দার রাজা, মেহেদী হাসান মিরাজ, আলজারি জোসেফ, মোহাম্ম’দ সিরাজ, ট্রেন্ট বোল্ট ও অ্যাডাম জ্যাম্পা।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!