খেলাধুলা

মেক্সিকোর বিপক্ষে একাধিক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা

চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের সঙ্গে হেরেছে আর্জেন্টিনা। প্রচণ্ড হতাশা তাঁদের চোখেমুখে। কোচ স্কালোনি, ডি মা’রিয়া, ডিফেন্ডার রোমেরো- সবার প্রতি যেন রাগ তাঁদের। তবে দলের প্রতি সহানুভূতিটা এখনও যায়নি। কাতারে আসার পর প্রতিদিনই কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ে একবার করে ঢুঁ মা’রেন তাঁরা। তবে গতকাল ওমুখো হননি কেউ। হওয়ার সুযোগও ছিল না।

আর্জেন্টিনার মিডিয়া ম্যানেজার নাকি তাঁদের সবাইকে টেক্সট করে জানিয়ে দিয়েছেন, মেসিদের অনুশীলন সেশনগুলো এখন থেকে ‘ক্লোজড ডোর’ হবে। সেখানে কোনো ক্যামেরার চোখ থাক, সেটা চান না কোচ স্কোলানি। গতকাল অনুশীলন ছিল বিকেলে, কিন্তু স্কালোনি জরুরি নোটিশে সেটা এগিয়ে নিয়ে আসেন সকাল ১১টায়। ঠা ঠা রোদে কঠোর অনুশীলন করান দলকে।

কাতারের গরমে যেন কাহিল না হয়ে পড়েন, সে জন্য এই ব্যবস্থা। তবে এরই মধ্যে ড্রেসিংরুমের ছিদ্র থেকে মেসির স্বদেশিরা জেনে নিয়েছেন, সৌদি আরবের কাছে হারার পর দলের ডিফেন্স নিয়ে একান্তে কথা হয়েছে লিওনেল মেসি আর কোচ স্কালোনির মধ্যে। আর সেখান থেকেই নাকি পরের ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে শুরুর একাদশে বেশ কিছু পরিবর্তন আসছে।

প্রথমেই ঠিক হয়েছে, ডিফেন্ডার ক্রিস্টিয়ান রোমেরোকে রিজার্ভ বেঞ্চে বসিয়ে রাখা হবে। ইংল্যান্ডে প্রিমিয়ার লিগ খেলার সময় টটেনহ্যামের শেষ ম্যাচে নাকি তিনি চোট পেয়েছিলেন। সেদিন সৌদি আরবের বিপক্ষে প্রথম গোলটি খাওয়ার সময় রোমেরোর মুভমেন্টে ভুল ছিল। সেটা তাঁর চোট-পরবর্তী অবস্থার কারণে কিনা তা নিয়ে স’ন্দেহ রয়েছে আর্জেন্টিনার মিডিয়া মহলে। রোমেরোর জায়গায় লিসান্দ্রো মা’র্টিনেজকে খেলানোর জন্য নাকি আর্জেন্টিনায় রীতিমতো গণদাবি উঠেছে।

এদিকে রক্ষণের আরও দুই খেলোয়াড় ন্যুহেল মলিনা আর নিকোলাস ট্যাগলিফিকোকেও বসিয়ে রাখা হবে। সেদিন সৌদির বিপক্ষে যে অনাকাঙ্ক্ষিত হার, তার পর পোস্টম’র্টেমে এই তিন খেলোয়াড়ের ছন্দপতনই সামনে এসেছে বেশি। তবে সেই রিপোর্টে বিশ্বা’সটা টলে যাওয়ার কোনো খবর আসেনি। পরের দুই ম্যাচ জিতলেই যে শেষ ষোলোতে যাওয়া সম্ভব, এটা অন্তত বিশ্বা’স করছেন মেসিরা।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!