সুনামগঞ্জ

জামিনে মুক্ত সুনামগঞ্জের ঝুমন, আ’দালতের নির্দেশ মেনে চলার প্রতিশ্রুতি

নিউজ ডেস্কঃ কারাগার থেকে দ্বিতীয়বারের মতো ছাড়া পেয়েছেন সুনামগঞ্জের শাল্লার ঝুমন দাস। বুধবার (২৩ নভেম্বর) বিকেল ৫ টা ২০ মিনিটের সময় সুনামগঞ্জ জে’লা কারাগারে থেকে মুক্ত হন তিনি। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দ্বিতীয়বার গ্রে’প্তার হয়েছিলেন ঝুমন।

কারাগার থেকে বেরিয়ে ঝুমন দাস গণমাধ্যমকে বলেন, ফেসবুক না চালানোর যে নির্দেশ হাই’কোর্ট দিয়েছেন তা আমি অবশ্যই মেনে চলবো। যে শর্তগুলো দেয়া হয়েছে সেগুলো আমি দেখেছি এবং তা আমি পালন করব।

গত ১৩ নভেম্বর বিচারপতি মো. সেলিম ও বিচারপতি মো. রিয়াজ উদ্দিন খানের সমন্বয়ে গঠিত হাই’কোর্ট বেঞ্চ ঝুমন দাসের জামিন দেন।

পরে আইনজীবী জানান, ঝুমন দাস ভবিষ্যতে ফেসবুকে উসকানিমূলক ও ধ’র্মীয় বিদ্বেষমূলক কোনও পোস্ট দেবেন না, এই মুচলেকায় তাকে ৬ মাসের জন্য জামিন দিয়েছেন হাই’কোর্ট।

এর আগে ২০২১ সালের ১৫ মা’র্চ সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে অনুষ্ঠিত একটি ওয়াজ মাহফিলের অ’তিথি মা’ওলানা মামুনুল হককে নিয়ে কটূক্তি করে ফেসবুকে ‘উসকানিমূলক’ স্ট্যাটাস দেন ঝুমন। এর ঘটনার জের ঘরে স্থানীয় নোয়াগাঁও নামক গ্রামের বাসিন্দাদের উপর হা’মলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জন্য দায়ী করা হয় ঝুমনের উসকানিমূলক ফেসবুক পোস্ট। পরে তার বি’রুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মা’মলা এবং তাকে গ্রে’প্তার করা হয়। প্রায় ৭ মাস কারাগারে থেকে জামিনে মুক্ত হন।

জামিনে মুক্তির শেষ সময়ে এসে ফের গত ২৮ আগস্ট ফেসবুকে ধ’র্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ার অ’প’রাধে ৩০ আগস্ট দুপুরে শাল্লা থা’না পু’লিশ তাকে আ’ট’ক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদে পোস্ট দেওয়ার বিষয়টি ঝুমন স্বীকার করলে রাতেই পু’লিশ বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মা’মলা করে তাকে গ্রে’প্তার দেখানো হয়। সেই মা’মলায় এতদিন জে’ল খেতে বুধবার ঝুমন দ্বিতীয়বার জামিন পান।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!