আন্তর্জাতিক

বিশ্বকাপে জাকির নায়েককে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি: কাতার

নিউজ ডেস্ক- বিতর্কিত ধ’র্মীয় বক্তা জাকির নায়েককে আমন্ত্রণ জানিয়ে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নেয়ার খবর সঠিক নয় বলে বলে ভা’রতকে জানিয়েছে কাতার।

এ নিয়ে আলোচনা শুরু হওয়ার পর বুধবার কূটনৈতিক যোগাযোগের মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

কাতার বলছে, সরকারিভাবে আমন্ত্রণ জানিয়ে জাকির নায়েককে অনুষ্ঠানে নেয়া হয়নি। তিনি নিজ উদ্যোগে টিকিট কে’টে সেখানে উপস্থিত হয়ে থাকতে পারেন।

তৃতীয় কোনো দেশ জাকির নায়েক সংক্রান্ত মিথ্যাচার ছড়িয়ে ভা’রত-কাতার স’ম্পর্ক নষ্ট করার চেষ্টা করছে বলে দাবি করেছে দেশটি।

২০ নভেম্বরের কাতারের দোহারে এবারের বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধন করা হয়। এতে অনেকের সঙ্গে জাকির নায়েককেও উপস্থিত হতে দেখা যায় বলে একাধিক মাধ্যমে তথ্য এসেছে। তবে জাকির নায়েক উদ্বোধনী মঞ্চে ছিলেন কি না তা নিয়ে স্পষ্ট কোনো বক্তব্য দেয়নি কাতার।

এই খবর নিয়ে সমালোচনার মধ্যেই কাতারের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত স্পোর্টস চ্যানেল আলকাসের বরাতে সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়, জাকির নায়েক ওই দেশে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ইস’লাম ধ’র্ম প্রচার করবেন।

এরপরই ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখায় ভা’রত। বলা হয়, যদি সরকারিভাবে জাকির নায়েককে আমন্ত্রণ জানানো হয় তবে ভা’রতের প্রতিনিধি উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখড়কে ফিরিয়ে আনা হবে।

এ ছাড়া ফুটবলকে ‘হারাম’ আখ্যা দিয়ে দেয়া জাকির নায়েকের একটি বক্তব্যের ভিডিও ছড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ভিডিওটি এবারের বিশ্বকাপ নিয়ে নয় বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

২০১৬ সালে জাকির নায়েকের ইস’লামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের বি’রুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেয় ভা’রত সরকার। বিভিন্ন ধ’র্মের মধ্যে শত্রুতা, ঘৃ’ণা ও নেতিবাচকতা ছড়ানোর জন্য ওই সংগঠনের সদস্যদের উৎসাহিত করার অ’ভিযোগ উঠেছিল তার বি’রুদ্ধে।

এক পর্যায়ে মালয়েশিয়ায় পালিয়ে যান জাকির নায়েক। চলতি বছর মা’র্চে ইস’লামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ভা’রত। যু’ক্তরাজ্য ও কানাডাতেও তার বক্তব্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!